প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতির বাণী:

সভাপতির বক্তব্য ঐতিহ্যবাহী কাপাসিয়া উপজেলা নানাদিক থেকেই অগ্রসর এক জনপদ। ১১টি ইউনিয়নের ২৩১টি গ্রাম নিয়ে গঠিত ৩৫৬.৯৮ বর্গকিলোমিটারের বিশাল ভৌগোলিক এলাকায় প্রায় সাড়ে চার লক্ষাধিক জনসংখ্যার এ উপজেলায় বেশ কয়েকটি কলেজ থাকলেও আজকের চাহিদানুসারে তা যথেষ্ট নয়। কারণ, এতগুলো প্রতিষ্ঠান থাকা সত্ত্বেও এ এলাকার শিক্ষার্থীরা ঢাকা, গাজীপুরসহ দেশের বিভিন্ন মানসম্পন্ন স্কুল-কলেজে ভর্তি হয়ে থাকে। এতে করে অভিভাবকদের খরচ ও শিক্ষার্থীর শ্রম দু’টোই বেড়ে যায়। একটি আধুনিক, গুণগত, যুগোপযোগী, ও মানসম্মত প্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করা এখন সময়ের দাবী। এই প্রয়োজনীয়তা অনুভব করে সকলের সহযোগিতায় “কাপাসিয়া সেন্ট্রাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ ” প্রতিষ্ঠা করি যা মানসম্মত শিক্ষা প্রসারে অগ্রণী ভুমিকা রাখাসহ এলাকার শিক্ষা ব্যবস্থা উন্নয়নে ব্যাপক কার্যক্রম গ্রহণ ও পরিচালনা করছে। একটি অনন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যা মানসম্পন্ন শিক্ষা নিশ্চিত করার ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে সবাই অক্লান্ত পরিশ্রম করতে বদ্ধ পরিকর। এলাকাবাসী ও সংস্থার মাধ্যমে পরিচালিত কোন প্রাইভেট স্কুল অ্যান্ড কলেজ এই উপজেলায় নেই। পরিবহন, আবাসিক ব্যবস্থা রাখাসহ অন্যান্য সকল সুযোগ ও সুবিধা নিশ্চিত করতে আমাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। সার্বিক দিক বিবেচনায় নিয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার গুণগত মান উন্নত করার লক্ষ্যে এলাকাবাসীসহ দেশের সচেতন ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ প্রয়োজনীয় সব রকম সহযোগিতার হাত প্রসারিত করবেন বলে আমার বিশ্বাস রয়েছে। গাজীপুর মেগাসিটি থেকে মাত্র ৩১ কিমি: দূরে কাপাসিয়া উপজেলার অবস্থান বিধায় ক্রমবর্ধমান কাপাসিয়া শহরের উপকণ্ঠে মনোরম পরিবেশে রাজনীতি ও ধুমপানমুক্ত একটি প্রতিষ্ঠানের প্রয়োজনীয়তা এখন অনস্বীকার্য। নৈতিকতা, সততা ও ধর্মীয় মূল্যবোধের অবক্ষয় আজ সর্বত্র। আমরা চাই এ অবস্থার উত্তরণ। অভিভাবক ও সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা অব্যাহত থাকলে, সার্বিক দিক বিবেচনায় কাপাসিয়া উপজেলা সদরে প্রতিষ্ঠিত “কাপাসিয়া সেন্ট্রাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ” এক অন্যন্য নজির স্থাপন করবে বলে আমি আশাবাদী। (মোঃ সোলায়মান সরকার) প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি কাপাসিয়া সেন্ট্রাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কাপাসিয়া, গাজীপুর
���Copyright � 2019 Design By PEOPLES SOFTECH